ইংরেজির ক্লাস

দেশের সব সরকারি-বেসরকারি স্কুল ও কলেজে ইংরেজি বিষয়ের ক্লাস ইংরেজিতেই নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতর (মাউশি)। এ ছাড়া প্রত্যেক শিক্ষার্থীকে দেশপ্রেমিক ও নৈতিক মূল্যবোধসম্পন্ন হিসেবে গড়ে তোলার জন্য নৈতিক শিক্ষা প্রদান ও মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস তুলে ধরতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার মাউশির মহাপরিচালক অধ্যাপক ড. এসএম ওয়াহিদুজ্জামান স্বাক্ষরিত এ সংক্রান্ত এক আদেশ জারি করা হয়।

দেশের প্রায় সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানেই ইংরেজি বিষয়ের ক্লাস ইংরেজিতে পরিচালনা করা হয় না। অনেক ক্ষেত্রে শিক্ষকরা ক্লাসে বাংলায় কথা বলেন, বাংলায় শিক্ষার্থীদের পাঠ বুঝিয়ে দেন, কোনো প্রশ্ন করলেও তা শিক্ষার্থীদের ইংরেজির পরিবর্তে বাংলাতেই করেন। তাই মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদফতর থেকে শিক্ষকদের ইংরেজি ক্লাস ইংরেজিতেই পরিচালনার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

মাউশির এ আদেশে বছরের শুরুতে মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস তুলে ধরে শিক্ষার্থীদের মুক্তিযুদ্ধ ও স্বাধীনতার গল্প শোনাতে বলা হয়েছে শিক্ষকদের। প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের লাইব্রেরিতে শিক্ষার্থীদের নাগালের মধ্যে ওপেন সেলফে ‘বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধ দলিলপত্র’ (১৫ খণ্ড) পড়ার জন্য উন্মুক্ত রাখতে বলা হয়। শিক্ষার্থীদের নৈতিকতা ও মূল্যবোধ শেখাতেও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে এ আদেশে।

এতে বলা হয়, শিক্ষকরা ক্লাসে দুটি করে নৈতিক বাক্য ব্যাখ্যা করবেন, যাতে শিক্ষার্থীরা তা বাস্তব জীবনে প্রয়োগ করতে পারে। তাছাড়া অ্যাসেম্বলিতে দুটি করে নৈতিক বাক্য পাঠ এবং প্রতিষ্ঠানের দেয়ালে নৈতিক বাক্য লেখার আদেশ দেওয়া হয়েছে।

এ ছাড়া মাল্টিমিডিয়া ব্যবহার করে ক্লাস পরিচালনা, ইন-হাউস ফ্যাকাল্টি ডেভেলপমেন্ট ও প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা, শিক্ষাঙ্গনকে গাছ লাগিয়ে সবুজায়ন করা এবং জাতীয় শুদ্ধাচার কৌশল অনুশীলন করতেও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে।