ফিনল্যান্ড

ফিনল্যান্ডের শিক্ষাব্যবস্থা পৃথিবীর মধ্যে র‌্যাংকিং-এ এক নম্বর। তাছাড়া দেশ হিসেবে বেশ সুনাম রয়েছে তাদের। ইউরোপের জার্মানি, ফিনল্যান্ড এবং নরওয়েতে উচ্চশিক্ষায় টিউশন ফি নেই। যা আমাদের জন্য একটা বড় সুযোগ সৃষ্টি করেছে। তা ছাড়া এই সুবিধার মাধ্যমে একজন শিক্ষার্থীর পড়াশোনার মান যেমন যুগোপযোগী হয়, তেমনি পাওয়া যায় ফিনল্যান্ড সরকারের পক্ষ থেকে আর্থিক সহায়তা।

ফিনল্যান্ডের অধিকাংশ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার মান এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের র‌্যাংকিং বেশ ভালো। আর এ বিষয়ে বিস্তারিত জানাচ্ছেন  ফিনল্যান্ডের  অবো একাডেমি ইউনিভার্সিটিতে ‘বায়োমেডিকেল ইমেজিং’-এ মাস্টার্সের শিক্ষার্থী মো. রাশেদুর রহমান রাশিব।

বর্তমানে ফিনল্যান্ডে অবো একাডেমি ইউনিভার্সিটিতে ‘বায়োমেডিকেল ইমেজিং’-এ মাস্টার্স করছি। ভারত, পাকিস্তান, ইরান, বলিভিয়া, আফ্রিকা ও ইউরোপের বিভিন্ন দেশের শিক্ষার্থীরা এখানে পড়াশোনা করতে আসে। বাংলাদেশ থেকেও অনেক শিক্ষার্থী পড়াশোনা করতে আসে। পড়াশোনার পাশাপাশি এখানে বিভিন্ন ধরনের কাজ করার সুযোগ আছে। এ ছাড়া বিশ্ববিদ্যালয়েও ল্যাব অ্যাসিস্টেন্ট এবং ইন্টার্নশিপ করার পার্টটাইম সুযোগ আছে।

এখানকার শিক্ষাব্যবস্থার সঙ্গে দেশের অনেক পার্থক্য। এখানে মুখস্থভিত্তিক পড়াশোনা না করিয়ে ব্যবহারিক পড়াশোনা করানো হয়। অনেক বেশি বাস্তবতার নিরিখে পড়াশোনা করানো হয়, যা পরবর্তী কর্মজীবনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।

ফিনল্যান্ডে এই বছর টিউশন ফি না থাকলেও আগামী বছর থেকে এই সুযোগটি আর থাকছে না। তবে আগামী বছর থেকে তারা স্কলারশিপের ব্যবস্থা করেছে। যে কেউ স্কলারশিপের আবেদন করে ফিনল্যান্ডে আসতে পারে।

যারা ফিনল্যান্ডে পড়তে চায় তাদের জন্য

উন্নত শিক্ষাব্যবস্থা এবং জীবনযাত্রার উচ্চ মানের জন্য ফিনল্যান্ড সব সময়ই বিদেশি শিক্ষার্থীদের কাছে পছন্দের ছিল। ফিনল্যান্ডে  স্নাতকোত্তর পড়তে আসার জন্য আইইএলটিএস পরীক্ষায় ভালো স্কোর প্রয়োজন। সাধারণত নভেম্বর-ডিসেম্বর মাসে আবেদন প্রক্রিয়া শুরু হয়, যা জানুয়ারি পর্যন্ত থাকে। www.Studyinfinland.fi  ওয়েবসাইটে ফিনল্যান্ডে পড়াশোনার যাবতীয় তথ্য আছে। ফিনল্যান্ডের সব বিশ্ববিদ্যালয়ের লিংক এবং অ্যাপ্লিকেশনের যাবতীয় তথ্য পাওয়া যাবে। ফিনল্যান্ডে মাস্টার্স ও পিএইচডি করছেন এমন বাংলাদেশি ছাত্ররা মিলে ফেসবুকে Bangladeshi Incoming Students Finland নামে গ্রুপ করেছেন, যা ফিনল্যান্ডে আসতে ইচ্ছুক শিক্ষার্থীদের জন্য সহায়ক হিসেবে কাজ করবে। এই গ্রুপে অ্যাপ্লিকেশন থেকে ভিসা হওয়ার আগ পর্যন্ত যাবতীয় তথ্য দিয়ে সিনিয়র বাংলাদেশি শিক্ষার্থীরা সহযোগিতা করেন বিভিন্নভাবে।

যেহেতু আগামী বছর থেকে স্নাতকোত্তরে ১২,০০০-১৬,০০০ ইউরো টিউশন ফি চালু হচ্ছে, তাই ফিনল্যান্ডে পড়তে এলে অবশ্যই স্কলারশিপ নিয়ে পড়তে আসা উচিত হবে। এখানে স্কলারশিপ না পেলে জার্মানি ভালো বিকল্প হতে পারে।

অনুলিখন : ওয়ালীউল্লাহ মিঠু

আরো পড়ুন

তুরস্কে আইএলটিএস ছাড়াই পড়ার সুযোগ আছে

 

বিঃ দ্রঃ গুরুত্বপূর্ণ শিক্ষা ,চাকরি এবং বিজনেস নিউজ ,টিপস ও তথ্য নিয়মিত আপনার ফেসবুক টাইমলাইনে পেতে লাইক দিন আমাদের ফ্যান পেজ বাংলার জব এবিঃ দ্রঃ গুরুত্বপূর্ণ শিক্ষা ,চাকরি এবং বিজনেস নিউজ ,টিপস ও তথ্য নিয়মিত আপনার ফেসবুক টাইমলাইনে পেতে লাইক দিন আমাদের ফ্যান পেজ বাংলার জব