জ্ঞান ও অভিজ্ঞতা, পরামর্শ, লেখা,লিখার পরামর্শ

আপনার জ্ঞান ও অভিজ্ঞতাকে সহজেই পরামর্শে রূপান্তর করুন। এমন অনেকই আছেন যারা আপনি যা জানেন তা জানে না। আপনার পরামর্শে তারা উপকৃত হবে।উপকৃত হতে পারেন আপনিও। নিজেকে প্রকাশ করার যেমন একটি উপায় আপনি পাচ্ছেন তেমনি তৈরি হবে আপনার ভাবমূর্তি ও সুনাম।

লেখার ধরন জেনে নিন
লেখার অনেক ধরণ আছে। পরামর্শ ধরণের লেখা সাধারণত কোন কিছু কিভাবে করতে হবে তার উপায়, কৌশল ইত্যাদি উল্লেখ করা হয়। “ইমেজ ডাউনলোড করার ৭ টি সাইট ” কিংবা “ডাবের পানির উপকারিতা” লেখাগুলো পরামর্শ ধরনের লেখা নয়। লেখা গুলোতে তথ্য উপস্থাপন করা হয়েছে। অন্যদিকে “তীব্র পেটের ব্যাথায় যা যা করবেন” অথবা “ফ্লিকার থেকে ইমেজ ব্যবহার করবেন যে ভাবে” হচ্ছে পরামর্শ ধরনের লেখা।

লিখুন যে কোনো বিষয়ে
হয়তো আপনি কোথাও ঘুরতে গিয়েছেন, কোন কিছু কিনেছেন, নতুন কিছু রান্না করেছেন, অফিসে বিশেষ কোন পরিস্থিতি মোকাবেলা করেছেন এমন যে কোনো বিষয়েই আপনি অন্যদের জন্য পরামর্শ লিখতে পারেন।

শিরোনাম ঠিক করুন
শিরোনামে যে বিষয়ে লিখছেন তা উল্লেখ করুন। সাথে কৌশল, উপায় বা পরামর্শ শব্দ গুলো যোগ করুন। পরামর্শ.কমে প্রকাশিত লেখাগুলোর শিরোনাম লক্ষ্য করুন আর আপনার লেখার শিরোনামের জন্য ধারণা তৈরি করুন।

লেখা শুরু করুন
লেখার সূচনাতেই একটা পটভূমি তৈরি করুন। লেখাটি কি বিষয়ে সেই সম্পর্কে পাঠক একটা ধারণা তৈরি করতে পারে সেই বিষয়টি নিশ্চিত করুন। পাঠককে লেখার পরবর্তী অংশ পড়তে আগ্রহী করে তুলুন।

পরামর্শ লিখুন
প্রতিটি পরামর্শ ধারাবাহিক ভাবে আলাদা আলাদা ভাবে তুলে ধরুন। প্রয়োজনীয় ছবি, স্ক্রিনসর্ট যুক্ত করুন।

উপসংহার লিখুন
লেখা শেষে সংক্ষেপে লেখার মূল বিষয়টি আবার উল্লেখ করুন।

লেখা ভালো করার আরো কিছু বিষয় জেনে রাখুনঃ
১) লেখার বক্তব্য সহজ ও সংক্ষেপে প্রকাশ করুন। অপ্রয়োজনীয় বাক্য ও শব্দ ব্যবহার হতে বিরত থাকুন।
২) খেয়াল রাখুন লেখা মূল আলোচনা থেকে যেন বিচ্যুত না হয়।
৩) বাক্য গুলো ছোট ও স্পষ্ট রাখুন।
৪) বানান শুদ্ধ রাখুন।

প্রাত্যাহিক জীবনে আপনি কিছু না কিছু শিখছেন ও জানছেন। সেই বিষয়গুলো নিয়ে সহজেই অন্যদের জন্য লিখতে পারেন পরামর্শ। পরামর্শ লেখা কোনো পিএইচডি থিসিস নয় – সহজ, সরল ও সংক্ষেপে লিখুন। শুরু করুন এখনি

Abul Kashem