চট্টগ্রামে আউটসোর্সিং

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি : বিশ্বে আইসিটির মাধ্যমে আউটসোর্সিং অনেক আগে থেকে ব্যবহার হয়ে আসছে উল্লেখ করে চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসক মেজবাহ উদ্দিন বলেছেন, এ খাতে বাংলাদেশ নতুন হলেও দ্রুত অগ্রযাত্রার কারণে এখন আর পিছিয়ে নেই। বর্তমান সরকার এ খাতের উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছে।

শুক্রবার (১০ জুন) চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে সরকারের ইনফরমেশন অ‌্যান্ড কমিউনিকেশন টেননোলজির (আইটি ডিভিশন) উদ্যোগে চট্টগ্রাম অঞ্চলের বিভিন্ন গণমাধ্যমের সাংবাদিকদের বেসিক আউটসোর্সিং ট্রেনিং প্রোগ্রামে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

জেলা প্রশাসক বলেন, ‘বিভিন্ন জেলায় আউট সোর্সিংয়ের মাধ্যমে কাজ করে বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন করছে। তবে এ ক্ষেত্রে চট্টগ্রাম অনেকটা পিছিয়ে থাকলেও বর্তমানে এর চাহিদা বেড়েছে। চট্টগ্রাম এর ক্ষেত্রও বেশি হওয়ায় সরকার এ খাতে জোর দিয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘আইসিটি খাতকে চট্টগ্রামে আরও প্রসারিত করতে রাউজান ও রাঙ্গুনিয়ায় আইটি পার্ক নির্মাণের উদ্যোগে নেওয়া হয়েছে। ইতিমধ্যে চুয়েটসংলগ্ন ২৫০ একর জায়গা অধিগ্রহণ করা হয়েছে। এ উদ্যোগ বাস্তবায়ন হলে আইসিটি বিষয়ে এগিয়ে যাবে চট্টগ্রাম।’

ফ্রিল্যান্স ট্রেইনার মো. ইকরাম অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের মাঝে আউটসোর্সিংয়ের মাধ্যমে বাড়তি আয় করার বিভিন্ন বিষয় তুলে ধরেন।

কর্মশালায় অংশ নেন দৈনিক আজাদীর সিনিয়র রিপোর্টার সবুর শুভ, দৈনিক সুপ্রভাত বাংলাদেশের প্রবীর বড়ুয়া, বাংলানিউজের সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট মো. মহিউদ্দিন, বাংলাদেশ প্রতিদিনের সিনিয়র রিপোর্টার সাইদুল ইসলাম ও রেজা মোজাম্মেল, দৈনিক পূর্বকোণের নিজস্ব প্রতিবেদক মো. নাজিম উদ্দীন, বিডিনিউজের মিঠুন চৌধুরী, বণিক বার্তার ওমর ফারুক, দৈনিক ইত্তেফাকের আজহার মাহমুদ, প্রথম আলোর সুজন ঘোষ, ভোরের কাগজের প্রীতম দাশ, দৈনিক সাঙ্গুর বদরুল ইসলাম মাসুদ, দৈনিক পূর্বদেশের রাহুল দাশ নয়ন, দৈনিক জনকণ্ঠের হুমায়ুন মাসুদ, দৈনিক খবরপত্রের মো. ওয়াজেদ, আশরাফ রেজা, বিভিন্ন পত্রিকার উপজেলা প্রতিনিধি সৌমিত্র বিকাশ, তৈয়ব চৌধুরী, প্রদীপ শীল, আনোয়ার হোসেন, রবিউল হোসেন, পুজন সেন, অনুপম দে প্রমুখ।