আল্লাহর বাণী

যারা সচ্ছলতা ও অভাব- সকল অবস্থার মধ্যেই দান করে, রাগ সংবরণ করেস ও মানুষকে ক্ষমা করে আল্লাহ তাদের ভালবাসেন। -আলে ইমরান : ১৩৪

একজন নিরীহ মানুষকে হত্যা করা সমগ্র মানবজাতিকে হত্যা করার সমান অপরাধ। একজন মানুষের জীবন রক্ষা করা সমগ্র মানবজাতির জীবন রক্ষা করার মতো মহান কাজ। -মায়েদা : ৩২

যে ভালো কাজে উদ্বুদ্ধ বা সাহায্য করবে সে উপকৃত হবে। আর যে মন্দ কাজে প্ররোচিত বা সহযোগিতা করবে সে ক্ষতিগ্রস্ত হবে। আল্লাহ সবই দেখছেন। -নিসা : ৮৫

ধর্মের ব্যাপারে কোনো জোর জবরদস্তি নেই। আলোর পথ এখন সুস্পষ্ট। -বাকারা : ২৫৬

অন্যের দেবতাকে গালি দিও না। -আনআম : ১০৮

তোমরা নিজেদের ধর্মের ব্যাপারে বাড়াবাড়ি করো না। -নিসা : ১৭১

নিজেদের ভেতর থেকে পরিবর্তনের সূচনা না করলে (অর্থাৎ দৃষ্টিভঙ্গি না বদলালে) আল্লাহ কোনো জাতির অবস্থার পরিবর্তন করেন না। -রাদ : ১১

চালচলনে সুশীল হও! মোলায়েম কণ্ঠে কথা বল! কণ্ঠস্বরকে গাধার মতো কর্কশ করো না। -লোকমান : ১৯

যখন কাউকে গীবত করতে শুনবে, তাকে বাধা দেবে বা তাতে অংশগ্রহণ থেকে বিরত থাকবে। -কাসাস : ৫৫

তোমরা মিথ্যা সাক্ষ্য দিও না। -হাজ্জ : ৩০

তোমরা গীবত বা পরনিন্দা করো না। গীবত করা মৃত ভাইয়ের মাংস ভক্ষণ করার সমান অপরাধ। -হুজরাত : ১২

অপরাধীদের সমর্থনে ওকালতি করো না। -নিসা : ১০৫

তোমরা বিচারে কারচুপি করো না। ওজনে কম দিও না। -আর রহমান : ৯

তুমি ক্ষমাশীল হও! সৎ কাজের আদেশ কর! আহাম্মকদের থেকে দূরে থাকো! -আরাফ : ১৯৯

হে বিশ্বাসীগণ! ওয়াদা অবশ্যই রক্ষা করতে হবে। -মায়েদা : ১

তোমরা সৎ কাজের মাধ্যমে অন্যায়ের জবাব দাও। -মুমিনুন : ৯৬