পে স্কেল

যেসব সরকারি চাকুরে জাতীয় পে স্কেল ২০১৫ অনুসারে এখনো অনলাইনে নিজেদের বেতন নির্ধারণ করেননি, তাদের আগামী ২০ জুলাইয়ের মধ্যে তা করার নিদের্শ দিয়েছে সরকার। যারা ওই সময়ের মধ্যে অনলাইনে বেতন নির্ধারণে ব্যর্থ হবেন, আগামী জুলাই থেকে তাদের বেতন স্থগিত হয়ে যাবে বলে সতর্ক করা হয়েছে।

মঙ্গলবার অর্থ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব (বাজেট-১) মোহাম্মদ মুসলিম চৌধুরী স্বাক্ষরিত এক পরিপত্রে এই নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। এতে বলা হয়েছে, ২০ জুলাইয়ের মধ্যে অনলাইনে বেতন নির্ধারণ না করায় কারও বেতন আটকে গেলে তিনি পরেও নির্ধারণের কাজটি করতে পারবেন। সে ক্ষেত্রে যথানিয়মে তার বকেয়া বেতন পরিশোধ করা হবে। সরকারের আর্থিক ব্যবস্থাপনার আধুনিকায়নে গত বছর ডিসেম্বরে আইবাস প্লাস প্লাস (iBAS++) নামে একটি সফটওয়ার চালু করা হয়, যার মাধ্যমে চাকরির তথ্য দিয়ে নিজেদের বেতন-ভাতা হিসাব করে নিতে পারেন সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীরা।

যেকোনো কর্মকর্তা-কর্মচারী নির্ধারিত ওয়েবসাইটে গিয়ে (www.payfixation.gov.bd) জাতীয় পরিচয়পত্রের (এনআইডি) নম্বর, কর্মরত পদ, চাকরিতে যোগদানের তারিখ, কতগুলো টাইম স্কেল, সিলেকশন গ্রেড পেয়েছেন তার তথ্য এবং সর্বশেষ স্কেলের তথ্য দিলেই নতুন স্কেলে তার বেতন কত দাঁড়াচ্ছে তা চলে আসবে। একইভাবে মিলবে অবসর ভাতার (পেনশন) তথ্য। স্বয়ংক্রিয়ভাবে ওই কর্মকর্তা-কর্মচারী বেতন-ভাতা নির্ধারিত হয়ে যাবে এর মাধ্যমে।

যাদের জাতীয় পরিচয়পত্র নেই এবং বর্তমান কর্মস্থলে থেকে জাতীয় পরিচয়পত্রের জন্য আবেদন করার সুযোগ নেই, তাদের ছুটি নিয়ে ওই কাজ সারতে বলা হয়েছে পরিপত্রে। চলতি বছর জানুয়ারি থেকে বাংলাদেশের ২১ লাখ সরকারি কর্মী নতুন কাঠামো অনুযায়ী বেতন পাচ্ছেন।