হকিং

আমাদের সময় নির্দিষ্ট। বাসযোগ্য নতুন গ্রহ খুঁজে না পেলে ইতি ঘটবে মানবজাতির। এমনটাই মনে করেন পদার্থবিজ্ঞানী স্টিফেন হকিং।

অক্সফোর্ড ইউনিয়ন ডিবেটিং সোসাইটিতে কথা বলছিলেন এই বিখ্যাত থিওরটিক্যাল ফিজিসিস্ট। সেখানে বললেন, মানবজাতি আর সম্ভবত ১ হাজার বছর সময় পাবে। এর পর এই পৃথিবীতে এই মহান জাতির ইতি ঘটবে।

৭৪ বছর বয়সী এই বিজ্ঞানী এর আগেও মানুষের অস্তিত্বের অবসান নিয়ে কথা বলেছেন। নিউক্লিয়ার যুদ্ধের সম্ভাবনা বৃদ্ধি, গ্লোবাল জলবায়ুর পরিবর্তন ইত্যাদি বড় কারণ হয়ে দাঁড়াবে বলে মনে করেন তিনি। এ ছাড়া আর্টিফিসিয়াল ইন্টেলিজেন্স এর চরম উৎকর্ষতাও মানবজাতি ধ্বংসের কারণ হবে।

হকিং বলেন, ভবিষ্যতের জন্য আমাদের অন্য কোনো গ্রহ বেছে নিতে হবে। আমি মনে করি না আর ১ হাজার বছর পর এই নশ্বর পৃথিবীতে টিকে থাকা যাবে।

নতুন গ্রহের সন্ধানেই নাসার কেপলার মহাকাশযান ২০০৯ সালে মহাশূন্যে পাড়ি জমায়। এটি গ্যালাক্সিতে পৃথিবীর মতো আকার ও বৈশিষ্ট্যসম্পন্ন কোনো গ্রহ খুঁজবে। যেখানে সূর্যের মতোই কোনো নক্ষত্র থাকবে যা মানুষের বাসযোগ্য পরিবেশ সৃষ্টি করেছে।

এ বছরই বিজ্ঞানীরা প্রোক্সিমা বি নামের একটি পৃথিবীর সাইজের গ্রহ আবিষ্কার করতে পেরে উত্তেজনায় আছেন। এটি প্রোক্সিমা নক্ষত্রকে কেন্দ্র করে ঘুরছে। এ ছাড়া গ্রহটি পৃথিবী থেকে মাত্র ৪.২ আলোকবর্ষ দূরে অবস্থান করছে। হতে পারে আমাদের অস্তিত্ব রক্ষায় এই গ্রহটির দিকে ছুটতে হবে।
সূত্র : বিজনেস ইনসাইডার

বিঃ দ্রঃ গুরুত্বপূর্ণ শিক্ষা ,চাকরি এবং বিজনেস  নিউজ ,টিপস ও তথ্য নিয়মিত আপনার ফেসবুক টাইমলাইনে পেতে লাইক দিন আমাদের ফ্যান পেজ বাংলার জব  এ